ভুতুড়ে মাদাগাস্কার দ্বীপের রহস্যময় বন্যজীবন | Madagascar Amazing Facts

Madagascar Amazing Facts, আফ্রিকা মহাদেশের ভুতুড়ে দ্বীপ দেশ, পৃথিবীর সবথেকে প্রাগৈতিহাসিক বা পুরানো দ্বীপ মনে করা হয় এই অতি আশ্চর্য দ্বীপ দেশটিকে ।

কারণ এখানকার প্রাণী থেকে গাছ ফুল সবই অদ্ভুত ও ডাইনোসর যুগের থেকেও অতি প্রাচীন কালের প্রমাণিত হয়েছে। Madagascar সম্পর্কে আসুন আশ্চর্য সব তথ্য জেনে নেই।

Wildlife of Madagascar Amazing Facts

Madagascar Amazing Facts – মাদাগাস্কার আশ্চর্যজনক তথ্য

এখানে দেখতে পাওয়া জীব জন্তুর ৭০ পার্সেন্ট প্রাণী পৃথিবীর আর অন্য কোন মহাদেশে কিংবা দেশের জঙ্গলে দেখতে পাওয়া যায় না।

ভূতত্ত্ব বিজ্ঞানীদের ধারণা পৃথিবীতে যেই সময় একটি মহাদেশ ছিল সেই সময় বা তারও আগে কোন প্রাকৃতিক দুর্যোগে পৃথিবীর মূল ভূমি থেকে পৃথক হয়ে যায় মাদাগাস্কার দ্বীপ।

মাদাগাস্কার জঙ্গলের আজব প্রাণী জীব বৈচিত্র ও প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের জন্য পৃথিবীর সবার কাছে আকর্ষণীয় ও কৌতূহলের অন্যতম কারণ।

হাজার হাজার কিংবা লক্ষ লক্ষ বছর বিচ্ছিন্ন এই দ্বীপ নিজেই বিভিন্ন আজব রহস্যময় প্রাণী ও গাছের জন্ম দিয়েছে যা দেখতে আমাদের এই পৃথিবীর অন্য সব অঞ্চলের থেকে সম্পূর্ণ আলাদা।

Wildlife of Madagascar – মাদাগাস্কারের বন্যজীবন

প্রথমেই বলেছি Madagascar বন্যপ্রাণী পৃথিবীর আর কোথাও দেখতে পাওয়া যায়না সেই প্রাণীর মধ্যে অন্যতম হলো Lemur লেমুর, বলা যায় লেমুর ও Baobab Tree বাওবাব গাছ মাদাগাস্কার দ্বীপের বিখ্যাত দুইটি পরিচিতি।

Lemur, লেমুর অধিকাংশ উঁচু গাছে বাশ করে এবং গাছের ফুল ফল ও পাতা খেয়ে বংশবিস্তার করে এই লেমুর প্রজাতির আশ্চর্য হচ্ছে এরা মা লেমুরকে প্রথমে খাবার খাওয়ার অধিকার দেয় ও মাদা লেমুর দলের নেতৃত্ব দেয়।

Madagascar Weather – মাদাগাস্কার আবহাওয়া

মাদাগাস্কার মাত্র পাঁচশো কিলোমিটার দৈর্ঘের একটি দ্বীপ কিন্তু এই দ্বীপের পূর্ব ও পশ্চিম দুইপ্রান্তের বৃষ্টির খুবই তারতম্য দেখাযায়, পূর্বদিকের হিন্দ মহাসাগরে আদ্রে হওয়ার জন্য সেখানে বৃষ্টি বেশি হয়।

তেমনি পশ্চিম দ্বীপের অংশে বৃষ্টি প্রায় হয়না বলা চলে, এই অঞ্চলের মাটি তাই কঠিন ও পোড়া তামাটে রঙের হয় এখানকার গাছপালার আকার আকৃতি ও প্রজাতি তাই সম্পূর্ণ আলাদা।

Madagascar Baobab Tree – বাওবাব গাছ

হাজার হাজার বছর জীবিত থাকা এটি একমাত্র পৃথিবীর সবথেকে পুরাতন গাছের প্রজাতির মধ্যে অন্যতম, এই গাছ ৪০ মিটারের ও বেশি উঁচু হতে পারে।

এই গাছের দশটির ও অধিক প্রজাতি মাদাগাস্কার অঞ্চলে দেখতে পাওয়া যায়, পূর্ব অংশে এটি বৃষ্টির জন্য এই অঞ্চলের গাছগুলি আকাশ ছুঁয়েছে প্রায়।

এই গাছটি নিচ থেকে সোজা উপরে উঠে গেছে উপরে কিছু শাখা ও ডাল বিস্তার করে কিন্তু সেই সবই উপরের দিকে মুখ করে থাকে সত্যি খুবই অসাধারণ ও লোমহর্ষক ও বটে।

তবে পশ্চিম প্রান্তের মরুভূমির আবহাওয়ায় এই গাছ খুব বেশি উঁচু হয়না এই অঞ্চলের প্রজাতি কিছুটা নিচু হয়েই আকারে মোটা হতে থাকে ও গাছের পাতা থাকেনা।

কিছু গাছ এতটাই মোটা হয়েছে যা পৃথিবীর অন্য কোন গাছ হয়না, তবে এই গাছের ফল হয় এবং এটির সাহায্যে বংশ বিস্তার ঘটায়, বর্তমানে নাৰ্ছারির মাধমেও এই গাছের সংখ্যা বৃদ্ধি করা হচ্ছে।

মাদাগাস্কারে ঘুরতে বা বেড়াতে আসা পর্যটকের প্রধান আকর্ষণ হচ্ছে এই Baobab Tree বাওবাব ট্রি, মাদাগাস্কার মূল শহর থেকে মাত্রা ৪০ মিনিট ট্যাক্সি দুরুত্বে দেখা পাওয়া যায় এই গাছের, যাওয়া আসার ভাড়া 25$ Dollar থেকে 30$ Dollar মাত্র।

এই গাছটির সামনে দাঁড়ালে আপনার মনে হতে পারে আপনি পৃথিবীর বাইরে অন্য কোন গ্রহে আছেন, হয়তো এটি ডাইনোসর বা তারও পুরাতন যুগের চিহ্ন হয়ে রয়ে গেছে আমাদের জানান দায়ের জন্য।

আরও পড়ুন:

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here