Titanic Ship History Bengali | টাইটানিক জাহাজের ইতিহাস কীভাবে ডুবে গেল?

Titanic Ship History

টাইটানিকের নাম শোনামাত্রই সবাই টাইটানিক চলচ্চিত্রটির কথা মনে করতে পারেন টাইটানিক জাহাজ সম্পর্কে বিশ্বের যে কোনও মানুষ জেনে থাকবেন ও বলতে পারবেন।

টাইটানিক সামুদ্রিক ভ্রমণতরী জাহাজ মানুষ নির্মিত ইতিহাসের সবথেকে বড় জাহাজ এটির আকর্ষণ শুধু এর আয়তনের মধ্যে সীমাবদ্ধ ছিলনা।

বিশাল আকারের টাইটানিক জাহাজের কল্পনা ও এটিকে বাস্তবে রূপায়ণ করাও মানুষের সভ্যতাকে আধুনিক যুগে এগিয়ে নেওয়ার একটি বড় প্রয়াস, এটির ভিতরের সৌন্দর্য ও কারুকাজ সেই যুগের শিল্পকর্মের জন্য আশীর্বাদ ছিল।

কিন্তু দীর্ঘ বছর ধরে নির্মাণ করা এই জাহাজের নির্মাণ ইতিহাস আর সৌন্দর্যকে মলিন করে দিয়েছে এটির পরিচালনার জন্য নিয়োজিত কাপ্তেনের অসতর্কতা ও দাম্ভিকতা।

বিশ্বের সর্বপ্রথম নির্মিত এতবড় এটি সামুদ্রিক ভ্রমণ জাহাজ যারমধ্যে বিনোদন, খেলার মাঠ, সামাজিক অনুষ্ঠান সব অয়োজন করার ব্যাবস্থা ছিল, সেটি মাত্র পাঁচদিন জলের উপরে থেকে আজ সমুদ্রের নিচে ঘুমিয়ে রয়েছে।

Titanic Ship History in Bengali –

টাইটানিক সম্পর্কে আকর্ষণীয় তথ্য – Facts about the Titanic

  • টাইটানিক সেই সময়কার সবথেকে বড় ও লম্বা সামুদ্রিক জাহাজ ছিল যার উচ্চতা ১৭৫ ফুট, মিটার হিসাবে ৫৩.৩ মিটার।
  • টাইটানিক সেই সময়কার মানুষ নির্মিত সবথেকে বড় কোন নির্মাণ এতবড়ো কোন কিছু মানুষ টাইটানিকের আগে তৈরী করেনি।
  • টাইটানিকের উচ্চতা সেই সময় বিশ্বে মানুষের দ্বারা তৈরী সকাল নির্মাণের থেকে অধিক উঁচু ছিল। এতটা উঁচু নির্মাণ মানুষ টাইটানিকের পূর্বে কিছু নির্মাণ করেনি।
  • সেই যুগের সব থেকে বড় জাহাজটি নির্মাণ করার সময় দুই জন নির্মাশ্রমিক প্রাণ হারিয়েছিলেন ও গুরুতর আহত হয়েছিলেন ২৪৬ জন।
  • সমস্ত রকম সুজুগ সুবিধা সম্পন্ন এই Titanic প্রমোদ জাহাজটির নির্মাণ 1911 সালের 31 মে সম্পূর্ণভাবে সম্পন্ন হয়েছিল।
  • বিশ্বের বৃহৎ Titanic নির্মাণ করতে প্রায় দুই বছর দুই মাস সময় নিয়েছিল, আর এটির নির্মাণ দলে আর্কিটেক ছাড়াও ছিল প্রায় ৩০০০ জন অভিজ্ঞ শ্রমিক।
  • টাইটানিক পৃথিবীর প্রথম ইঞ্জিন চালিত আধুনিক জাহাজ যেটি সমুদ্রে বরফের পাহাড়ের সাথে ধাক্কা লাগার কারণে সমুদ্রে তলিয়ে গিয়েছে। এই ঘটনার গুণরাবৃতি আর কখনো ঘটেনি আজ পর্যন্ত।

আরও পড়ুন:

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here